ছাত্রলীগের সম্মেলন ৩ ডিসেম্বর

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩০তম কেন্দ্রীয় সম্মেলন আগামী ৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। শুক্রবার বিকেলে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক।

ছাত্রলীগের সর্বশেষ কেন্দ্রীয় সম্মেলন হয় ২০১৮ সালের ১১ মে। ওই সম্মেলনের মাধ্যমে সংগঠনটির নেতৃত্বে আসেন রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও গোলাম রব্বানী। হিসাব অনুযায়ী- ২০২০ সালের ১০ মে বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা।

তবে বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের কারণে একবছর পর শোভন-রব্বানীকে সরিয়ে দেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। তারপর জ্যেষ্ঠ্যতার ভিত্তিতে আল নাহিয়ান খান জয়কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি তাদের ভারমুক্ত করে দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তিন বছরের বেশি সময় তারা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে রয়েছেন।

এদিকে, ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আনন্দ মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন সম্মেলনপ্রত্যাশী ও তাদের অনুসারীরা। অনেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে আনন্দ ও উল্লাস প্রকাশ করছেন।