চুয়াডাঙ্গায় শৈত্যপ্রবাহের পর তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে

নিউজ ডেস্ক।।

: চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে টানা চারদিন ধরে বয়ে চলা শৈত্যপ্রবাহের পর তাপমাত্রা কিছুটা বেড়েছে।

সোমবার (০৯ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় এ জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
গতকাল রোববার জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে তাপমাত্রা বাড়লেও কমেনি শীতের দাপট।

সকাল থেকে সূর্য উঁকি দিলেও নেই তেমন উত্তাপ। চারপাশ জুড়ে রয়েছে ঘন কুয়াশা। হিম শীতল বাতাসে শীতের তীব্রতা জানান দিচ্ছে কয়েকগুণ। প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হচ্ছে না জনসাধারণ। যারা বের হচ্ছে তারাও গরম কাপড় পরে শীতের প্রস্তুতি নিয়েই বের হচ্ছে। শীতের তীব্রতায় খেটে খাওয়া মানুষ পড়েছে বিপাকে। টান পড়ছে আয় রোজগারে। হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে শীতজনিত বিভিন্ন রোগীর সংখ্যা।

প্রকৃতির এমন বৈরী আচরণে কষ্ট ও দুর্ভোগ বেড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষের। ভোর থেকে কাজের জন্য অপেক্ষা করেও মিলছে না কাজ। ফিরে যেতে হচ্ছে বাড়িতে। সরকারি সহযোগীতার আশায় চেয়ে আছেন তারা। একেবারে স্থবির হয়ে পড়েছে এ অঞ্চলের জনজীবন।

চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রকিবুল হাসান জানান, গেল চারদিন ধরে চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছ। এছাড়া বাতাসের আদ্রতার পরিমাণ ছিল বেশি। দিনের বেলায় সূর্যের উত্তাপ মিলছে না। এতে শীতের তীব্রতা বেশি অনুভূত হচ্ছে। সামনের দুই-তিনদিন তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। তারপর আবার তাপমাত্রা কমতে পারে। এ মাসে আরও দুটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।