চুক্তিভিত্তিক অধ্যক্ষ,প্রধান শিক্ষক নিয়োগে মাউশির নির্দেশনা

অনলাইন ডেস্ক।।

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ-প্রধান শিক্ষকদের কোনো বিধি-বিধান না মেনে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

এ অবস্থায় চুক্তিভিত্তিক প্রতিষ্ঠান প্রধান নিয়োগ সংক্রান্ত বিধির একটি চিঠি সম্প্রতি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠিয়েছে মাউশি।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে বিধি-বিধান মেনে প্রতিষ্ঠান প্রধান নিয়োগে বয়স ৬৫ বছরের যাতে বেশি না হয় তা স্মরণ করে দেওয়া হয়েছে।

মাউশি সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় ব্যবস্থাপনা কমিটি বিধিবিধান না মেনে অধ্যক্ষ, প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিচ্ছেন এবং এতে জটিলতা তৈরি হচ্ছে। জটিলতা এড়াতে এমপিও নীতিমালার আলোকে চুক্তিতে নিয়োগের বিধান মেনে চলার জন্য চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবলকাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০২১ এর ১১.১১ ধারায় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের চাকরিতে প্রথম প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩৫ বছর। তবে সমপদে বা উচ্চতর পদে (উচ্চতর পদ বলতে শুধু প্রতিষ্ঠান প্রধান ও সহকারী প্রধান বুঝাবে) নিয়োগের ক্ষেত্রে ইনডেক্সধারীদের জন্য বয়সসীমা শিথিলযোগ্য। শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদির সরকারি অংশ ৬০ বছর পর্যন্ত প্রদেয় হবে। তবে ঐতিহ্যবাহী ও মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে এবং সরকারের কোনো আর্থিক সুবিধা/এমপিও না নেওয়ার শর্তে সরকারের অনুমোদনক্রমে শুধু প্রতিষ্ঠান প্রধানের ক্ষেত্রে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া যাবে। এক্ষেত্রে, সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকসহ সব দায়ভার বহন করতে হবে এবং সরকার এর কোনো দায় বহন করবে না। এমপিওভুক্ত কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের চুক্তিভিত্তিক প্রধানের মেয়াদ সরকারের আর্থিক সংশ্লিষ্টতা না থাকলেও কোনো ক্রমেই ৬৫ বছরের বেশি হতে পারবে না মর্মে বিধান রয়েছে।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ‘ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে, জনবলকাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০২১ এর ১১.১১ ধারায় অনুসৃত বিষয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষকদের কোনো বিধি-বিধান না মেনে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে এবং তা অনুমোদনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) বরাবর পাঠানো হচ্ছে।

এক্ষেত্রে চুক্তিভিত্তিক অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে উক্ত শিক্ষক বিধি অনুযায়ী ৬০ বছর পূর্তিতে অবসরে গেলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০১১ সালের ৬ জুন এবং ২০১২ সালের ৯ জুলাইয়ের স্মারক অনুযায়ী অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষকের অনুপস্থিতিতে সহকারী প্রধান শিক্ষককে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বভার অর্পণ করতে হবে। কোনো প্রতিষ্ঠানে সহকারী প্রধান শিক্ষক না থাকলে জ্যেষ্ঠ শিক্ষককে অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষকের দায়িত্বভার অর্পণ করতে হবে। তবে পরবর্তীতে অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষক পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের বিষয়টি সরকারের চূড়ান্ত অনুমোদন সাপেক্ষে তিনি উক্ত পদের দায়িত্বভার গ্রহণ করতে পারবেন।

এই চিঠি সব বেসরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজ/বেসরকারি নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গভর্নিং বডি/ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এবং বেসরকারি স্কুল অ্যান্ড কলেজ/বেসরকারি নিম্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ/প্রধান শিক্ষককে পাঠানো হয়েছে।