চিনি খেলেই ডায়াবেটিস হয় ধারণাটি ভুল!

অনলাইন ডেস্ক।।
শরীরে পর্যাপ্ত ইনসুলিন তৈরি না হলে কিংবা কোষ সৃষ্টি হওয়া ইনসুলিন ঠিকমতো কাজ না করলে রক্তে সুগারের মাত্রা বেড়ে যায়। মূলতঃ এ সমস্যাকে ডায়াবেটিস বলে। বর্তমানে তরুণদেরও এ রোগ হচ্ছে।

সাধারণতঃ দেহে মজুদ সুগার বা খাদ্য থেকে পাওয়া ফ্যাট ব্যবহারে শরীরকে সাহায্য করে প্যানক্রিয়াস থেকে নিঃসৃত ইনসুলিন।

আমেরিকান ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশনের বিশেষজ্ঞদের মতে, জিনগত ছাড়া অজানা বিভিন্ন কারণে টাইপ-১ ডায়াবেটিস হতে পারে। এ রোগ সাধারণতঃ অল্প বয়সে হয়। এতে আক্রান্ত হলে প্যানক্রিয়াস ইনসুলিন তৈরি করতে পারে না।

আর টাইপ-২ ডায়াবেটিসের কারণ বংশগত ও জীবনযাপনের ধরন। মানুষকে এতে বেশি আক্রান্ত হতে দেখা যায়। এর কারণে শরীরে প্যানক্রিয়াস ইনসুলিন তৈরি করে বটে। তবে তা পর্যাপ্ত থাকে না। তাতে শরীরের কোষগুলো সাড়া দেয় না।

আমেরিকান ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশন জানাচ্ছে, চিনি খেলে ডায়াবেটিস হয়- এটি ভুল ধারণা। ড. সুজিত ঝা জানান, চিনি এ রোগের জন্য সরাসরি দায়ী-এমনটা অলীক ধারণা। তবে এটি খেলে কিছু সমস্যা দেখা দেয়। যা থেকে ডায়াবেটিস হতে পারে।

মূলত, ওজন বৃদ্ধির জন্য দায়ী চিনি। এ সমস্যা ডায়াবেটিসের অন্যতম কারণ। এটি খেলেই এ রোগ হয় না। তবে অতিরিক্ত রিফাইন্ড সুগার গ্রহণ স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। কারণ, এতে পুষ্টি থাকে না। শুধু ক্যালোরি বিদ্যমান।

ড. পারভীন ভার্মা জানিয়েছেন, কেবল চিনিযুক্ত খাবার ডায়াবেটিসের জন্য দায়ী নয়। মানসিক চাপ, স্থুলতাসহ নানা কারণে এটি হতে পারে। যদিও রিফাইন্ড সুগারের সঙ্গে ডায়াবেটিসের সম্পর্ক রয়েছে। তবে চিনির মতো শর্করাযুক্ত খাবার শরীরে গ্লুকোজোর মাত্রা হ্রাস করে।