গোপালগঞ্জে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী করোনায় আক্রান্ত, ক্লাস বন্ধ

প্রকাশিত: ৪:০৯ অপরাহ্ণ, বুধ, ২২ সেপ্টেম্বর ২১

নিউজ ডেস্ক।।

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলায় ফেরধোরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ফলে ওই শ্রেণির ক্লাস বন্ধ রেখেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

গত শুক্রবার ওই ছাত্রী কারোনায় আক্রান্ত হয়। ৮ বছরের ওই শিশু ফেরধোরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ে।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক সোহেলী পারভীন পান্না বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘১৭ মাস বন্ধের পর গত ১২ সেপ্টেম্বর আমরা স্কুল খুলি। শিডিউল অনুযায়ী তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ক্লাসে আসছিল। করোনা পজিটিভ হওয়া ওই শিক্ষার্থী ক্লাসে উপস্থিত ছিল। কিন্তু সেদিন তার মধ্যে করোনার কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। আমরা ক্লাসে প্রবেশের আগে সব শিক্ষার্থীর শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করে দেখেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত ১৭ সেপ্টেম্বর করোনা পরীক্ষায় ওই শিক্ষার্থী ও তার মায়ের পজিটিভ ফল আসে। কিন্তু সে স্কুলে না আসায় ১৯ সেপ্টেম্বর আমরা বিষয়টি জানতে পারি। তবে বর্তমানে সে ভালো আছে।’

ওই শিক্ষার্থীর মা বলেন, ‘আমার মেয়ে ১২ সেপ্টেম্বর স্কুলে গিয়েছিল। এর পরদিন তার জ্বর আসে। পরে স্থানীয় চিকিৎসকের পরামর্শে আমি তাকে ওষুধ খেতে দেই। পরে আমাদের দুজনেরই কাশিসহ জ্বর আসে। এ কারণে ১৬ সেপ্টেম্বর আমরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ সেপ্টেম্বর ফল পাই। তারপর থেকে আমরা বাড়িতেই আছি।’

কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সুশান্ত বৈদ্য বলেন, ‘ওই শিক্ষার্থী বর্তমানে সুস্থ আছে। সে বাড়িতে আইসোলেশনে আছে এবং করোনা আক্রান্তের দিন থেকেই আমরা তার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করছি।’

কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফেরদৌস ওয়াহিদ বলেন, ‘স্বাস্থ্য সুরক্ষা বজায় রেখে উপজেলার সবগুলো স্কুলে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। আমরা স্কুলগুলোকে সার্বক্ষণিক তদারকি করছি। প্রতিদিন স্কুলে আসা শিক্ষার্থীদের শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ করা হচ্ছে। যদি কোনো শিক্ষার্থীর করোনার লক্ষণ দেখা যায়, তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে তার নমুনা পরীক্ষা করা হবে।’

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.