গণবিজ্ঞপ্তির নোটিশ না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরবেন না নিবন্ধনধারীরা

নিউজ ডেস্ক।।

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির নোটিশ জারি না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরবেন না বলে জানিয়েছেন চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রত্যাশী শিক্ষক ফোরামের সভাপতি এম এ আলম।

সোমবার (৫ ডিসেম্বর) বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এই ঘোষণা দেন তিনি।

এম এ আলম বলেন, ‘আমরা ১০ নভেম্বর প্রতীকি অনশন কর্মসূচি পালন করেছি। এই অনশন স্থলে এনটিআরসিএ এর সচিব ওবায়দুর রহমান আমাদেরকে আশ্বস্ত করেন যে নভেম্বরেই গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে এনটিআরসিএ। কিন্তু কয়েকবারের মতো গত ১০ তারিখের প্রতিশ্রুতিও এনটিআরসিএ রাখতে পারেনি, অত্যন্ত হতাশা ও ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।’

তিনি বলেন, ‘গণবিজ্ঞপ্তি প্রত্যাশী প্রার্থীদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। বন্ধুবান্ধব, পরিবার ও সমাজ সকল ক্ষেত্র থেকে লাঞ্ছিত ও অবহেলিত হচ্ছে। প্রিলিমিনারি, রিটেন ও ভাইবা পাস করে এক বিজ্ঞপ্তির জন্য এভাবে রাস্তায় নামতে হবে, অনশনে বসতে হবে, এটা জাতি ও সরকারের জন্য অত্যন্ত লজ্জার।’

তিনি আরো বলন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় উচ্চ শিক্ষিত বেকার শিক্ষকদের নিয়ে টালবাহানা মেনে নেয়ার মতো না। আমরা যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে দ্রুত সমাধান চাই। যতক্ষণ পর্যন্ত গণবিজ্ঞপ্তির নোটিশ জারি না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত নিবন্ধনধারীরা ঘরে ফিরবেন বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ১০ নভেম্বর এনটিআরসিএ’র কার্যালয়ের সামনে প্রতীকী অনশন কর্মসূচিতে নভেম্বরের মধ্যে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের প্রতিশ্রুতি দেয় এনটিআরসিএ। তবে সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পারেনি সংস্থাটি। এর আগে একাধিকবার এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান এবং সচিব দ্রুত সময়ের মধ্যে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা বললেও সেটিও বাস্তবায়ন হয়নি। দাবি আদায়ে এবার আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করেছেন চাকরিপ্রার্থীরা।