এলাচ যখন ডাক্তার

প্রকাশিত: ২:২৫ অপরাহ্ণ, বুধ, ৬ জানুয়ারি ২১

শিক্ষাবার্তা ডেস্ক ঃ
সুগন্ধি জাতীয় মসলা এলাচ। অনেক সুস্বাদু খাবারেই এলাচ অপরিহার্য। তবে খাবারের স্বাদ বাড়ানো ছাড়াও এলাচ আরও কিছু কাজ করে যা আমাদের শরীরের জন্য বেশ উপকারী। ছোটো ও বড় দুই ধরনের এলাচই শরীরের নানা সমস্যা দূর করে।

যাদের চোখ জ্বালার সমস্যা আছে তারা এলাচের চিকিৎসা নিতে পারেন। অল্পকিছু এলাচ নিয়ে তার সাথে সমপরিমাণ চিনি মেশান। তারপর ওই মেশানো দ্রব্য গুঁড়ো করে কয়েকদিন নিয়মিত খান। চোখের জ্বালা কমে যাবে।

প্রচণ্ড জ্বরে অথবা গাড়িতে উঠলে অনেকের অনবরত বমি করার অভ্যাস আছে। ঘন ঘন বমি বন্ধ করতে এলাচের ওপরের শক্ত আবরণটুকু পুড়িয়ে নিয়ে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে ঠিক ঠিক বমি বন্ধ হবে।
মুত্রদোষ থাকলে মধুর সাথে এলাচের গুঁড়ো মিশিয়ে একমাস খান। অবশ্যই সুফল পাবেন।

কৌষ্ঠকাঠিন্য থাকলে এলাচ আপনার জন্য মহৌষধ। দুধ ও তার সমপরিমাণ পানি, বেল এবং এলাচ একসাথে মিশিয়ে চুলায় বসিয়ে জ্বাল দিতে থাকুন। যখন দুধের পরিমাণ কমতে কমতে অর্ধেকে এসে নামবে তখন জ্বাল বন্ধ করুন। এবার গ্লাসে নিয়ে খেয়ে ফেলুন দুধটুকু। কৌষ্ঠকাঠিন্য দৌঁড়ে পালাবে।

যারা প্রবল জ্বরে ভুগছেন, তারাও দুধের চিকিৎসাটা করে দেখতে পারেন। জ্বর অনেকটাই উপশম হবে আশা করি।
হঠাৎ কোথাও ব্যথা পেলে হিংয়ের সঙ্গে এলাচের দানা মিশিয়ে সন্ধক লবনের পানি এবং এরেন্ডির তেলসহ ব্যথা পাওয়া স্থানে লাগিয়ে দিন। ব্যথার চিহ্নমাত্র থাকবে না।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.