এটুআই আইন-২০২৩ মন্ত্রিসভায় চূড়ান্ত অনুমোদন

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এজেন্সি টু ইনোভেট (এটুআই) আইন-২০২৩ এর চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সোমবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ আইনের চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।

সোমবার বিকেলে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আইনটিতে মূলত তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে সরকারের উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করতে একটি এজেন্সি গঠন করা হবে। এতে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সহায়ক হবে। এজেন্সির ১৫ সদস্যের একটি পরিচালনা বোর্ড হবে, যার সভাপতি থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি মন্ত্রী। সংস্থাটি হবে স্বায়ত্তশাসিত।

তিনি আরো বলেন, ‘আয়কর আইন-২০২৩‘ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। নতুন এ আইন মূলত আগের আইনটিকে সহজ করা হয়েছে। জটিলতাগুলো দূর করা হয়েছে। ব্যবসায়ীদের আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়া সহজ করা হয়েছে। আইনটিতে ৩৪৮টি ধারা আছে। অনেক বড় আইন। আইনটি আন্তর্জাতিক মানদণ্ডের সঙ্গে তুলনা করার মতো। অনেক আলাপ-আলোচনা করে এটি তৈরি করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, মন্ত্রিসভার বৈঠকে মোট ৮টি প্রস্তাব তোলা হয়। এরমধ্যে ৫টি ছিল অবহিতকরণ।

এছাড়া মন্ত্রিসভার বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের বিষয়ে ২০২২ সালের চতুর্থ ত্রৈমাসিক প্রতিবেদন তুলে ধরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, গেল বছরের চতুর্থ ত্রৈমাসিকে (গত বছরের অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর) মন্ত্রিসভায় নেয়া সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হার ৬৭ দশমিক ৭৮ শতাংশ। গত বছরের অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর প্রান্তিকে ৬টি মন্ত্রিসভা বৈঠক হয়। এতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় ৯০টি। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হয়েছে ৬১টি। এছাড়াও ২৯টি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নাধীন রয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন জানান, গত অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত মন্ত্রিসভা বৈঠকে দুটি নীতি বা কর্মকৌশল এবং ১১টি চুক্তি বা প্রটোকল অনুমোদিত হয়েছে। এ সময়ে সংসদে আইন পাস হয়েছে চারটি।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/২৩/২৩