এক জেলায় একটি বই-ও পায়নি ৬ষ্ঠ ও ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহঃ নতুন বছরের ১৬ দিন চলে গেলেও এখনও ময়মনসিংহের মাদ্রাসাগুলোর ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা বই হাতে পায়নি। এ অবস্থায় লেখাপড়া শুরু করতে না পারায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জেলা সদরের গোপালনগর এমদাদিয়া ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী কামরুন নাহার জানায়, বছরের প্রথম দিন সব শ্রেণির শিক্ষার্থীরা নতুন বই হাতে পেলেও আমরা এখনও একটি বইও হাতে পাইনি। পুরনো বই নিয়েই মাদ্রাসায় আসা-যাওয়া করছি। বছরের প্রথম দিন নতুন বই হাতে পাওয়ার যে আনন্দ, তা থেকে আমরা বঞ্চিত হয়েছি।

একই মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী সালমা আক্তার জানায়, নতুন বছরের ১৬ দিন চলে গেলেও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা নতুন বই পায়নি। নতুন বই হাতে পেলে লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়। কিন্তু বই না পাওয়ায় মাদ্রাসায় আসা-যাওয়া করছি ঠিকই, তবে আগ্রহ কমেছে। কবে বই পাবো তাও জানি না।’

এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক মোশারফ হাসান বলেন, ‘প্রতিবার বছরের শুরুতেই ছেলেমেয়েরা নতুন বই হাতে পায়। জানুয়ারি মাসের ১৬ পার হয়ে গেলেও এখনও মাদ্রাসার অষ্টম ও ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা বই হাতে পায়নি। এটা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। নতুন বই না আসায় ছেলেমেয়েরা মাদ্রাসায় আসতে চায় না। এর ফলে তাদের ব্যাপকভাবে লেখাপড়ায় ক্ষতি হচ্ছে।’

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জেলায় ৩৮৮টি দাখিল, আলিম, ফাজিল ও কামিল মাদ্রাসা রয়েছে। বছরের শুরুতে সব শ্রেণির বই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হলেও এখন পর্যন্ত ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীর হাতে একটি বইও তুলে দেওয়া হয়নি।

বই না পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘ছাপাখানায় সমস্যা থাকার কারণে এখন পর্যন্ত মাদ্রাসার ষষ্ঠ ও অষ্টম শ্রেণির বই আমাদের হাতে আসেনি। তবে চলতি সপ্তাহের মধ্যেই বই চলে আসবে এবং শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।’

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/১৭/২৩