আপিল করে এমপিও পেলো ১৯৮ স্কুল-কলেজ

শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ এমপিওর জন্য আরো ১৯৮টি স্কুল-কলেজ নির্বাচিত করেছে সরকার। প্রথমে এমপিওভুক্তির আবেদন করলেও নির্বাচিত হতে না পেরে আপিল করে এমপিওভুক্ত হয়েছে এসব প্রতিষ্ঠান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। নতুন এমপিওভুক্ত হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে পাঁচটি ডিগ্রি কলেজ, ২৭টি উচ্চমাধ্যমিক কলেজ, ২২টি উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৬৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৮১টি নিম্নমাধ্যমিক স্কুল রয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বেসরকারি মাধ্যমিক শাখার উপসচিব মো: মিজানুর রহমান জানান, প্রথম দফায় এমপিওভুক্ত না হতে পেরে আপিল করা প্রতিষ্ঠানগুলোর তথ্য যাচাই-বাছাই করে এসব প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে সরকার সম্মত হয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাদি ও শৃঙ্খলাসংক্রান্ত বিষয় বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০২১ অনুযায়ী কার্যকর হবে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের যোগ্যতা বা অভিজ্ঞতা নিয়োগকালীন বিধি-বিধান ও সংশ্লিষ্ট পরিপত্র মোতাবেক প্রযোজ্য হবে। শিক্ষক নিবন্ধন চালু হওয়ার আগে বিধিসম্মতভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মচারীরা এমপিওভুক্তির সুযোগ পাবেন। পরবর্তীতে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির জন্য অবশ্যই নিবন্ধন সনদ প্রযোজ্য হবে।

এমপিওভুক্তির জন্য বিবেচিত হওয়া প্রতিষ্ঠান নীতিমালা অনুযায়ী কাম্য যোগ্যতা বজায় রাখতে ব্যর্থ হলে, সে প্রতিষ্ঠানের এমপিও স্থগিত করা হবে। পরে কাম্য যোগ্যতা অর্জন করলে স্থগিত এমপিও অবমুক্ত করার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। যেসব তথ্যের ভিত্তি করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়েছে, তার কোনোটি ভুল বা মিথ্যা প্রমাণিত হলে এমপিও বাতিলসহ তথ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির এ আদেশ জারির তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২৩ থেকে কার্যকর হবে।

শিক্ষাবার্তা ডট কম/এএইচএম/০১/১৩/২৩