আখেরি চাহার শোম্বা আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

আখেরি চাহার শোম্বা আজ। সফর মাসের শেষ বুধবার শেষ নবী ও রাসূল হজরত মুহাম্মাদ সা:- এর দীর্ঘ অসুস্থতার পর সাময়িক সুস্থ হয়ে ওঠার দিনকে স্মরণ করে মুসলিম উম্মাহর মধ্যে যে ইবাদত ও উৎসব প্রচলিত তাই ‘আখেরি চাহার শোম্বা’। বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশের মুসলিমরা রাষ্ট্রীয় ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে এ দিনটি যথাযথ ধর্মীয় ভাবগম্ভীর্যের মাধ্যমে পালন করে থাকেন।

আখেরি চাহার শোম্বা মূলত আরবি ও ফার্সি বাক্য। প্রথম শব্দ ‘আখেরি’ আরবি ও ফার্সিতে পাওয়া যায়। যার অর্থ হলো- শেষ। ফার্সি ‘চাহার’ শব্দের অর্থ হলো- সফর মাস এবং ফার্সি ‘শোম্বা’ শব্দের অর্থ হলো বুধবার। অর্থাৎ ‘আখেরি চাহার শোম্বা’র অর্থ দাঁড়ায়- সফর মাসের শেষ বুধবার। হজরত মুহাম্মদ সা: জীবনের শেষ সময়ে বেশ অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার শরীরে প্রচণ্ড জ্বর ছিল।

জ্বরের কারণে তিনি বারবার জ্ঞান হারাতেন। এ অবস্থায় নবী পরিবারের সদস্য ও সাহাবিরা উদ্বিগ্ন ও দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েন। ওই নিরাশার মধ্যেই একদিন আশার আলো জ্বলে ওঠে। এক সকালে তিনি জ্ঞান ফিরে পেলেন। অনেকটা সুস্থ স্বাভাবিক আচরণ করেন। এরপর তাকে গোসল করানো হয়। প্রিয় নবীর সুস্থ হওয়ার ঘটনায় তার পরিবারের সদস্য ও সাহাবিরা আনন্দে আত্মহারা হন। খুশিতে তারা আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে নফল নামাজ আদায় করেন। আল্লাহর নামে গরিব-দুঃখীর মধ্যে সামর্থ্য অনুযায়ী দান-খয়রাত করেন।

হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহার এক বর্ণনা থেকে জানা যায়, সফর মাসের শেষ বুধবার মুহাম্মাদ সা: হঠাৎ সুস্থ হয়ে ওঠেন। যদিও দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা নামতে নামতে তিনি আবারো অসুস্থ হয়ে পড়েন।

ইফার অনুষ্ঠান : আখেরি চাহার শোম্বা উপলক্ষে আজ বুধবার বাদ জোহর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে আলোচনা সভা ও দোয়া মুনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। আলোচক হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন মদিনাতুল উলুম কামিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক আল আযহারী। সভাপতিত্ব করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক মো: আনিছুর রহমান সরকার।