আইনজীবীদের কর্মবিরতি ৩য় দিনে, বিপাকে বিচারপ্রার্থীরা

নিউজ ডেস্ক।।

সিরাজগঞ্জে আইনজীবীদের কর্মবিরতির কারণে তৃতীয় দিনেও জজ কোর্ট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে হাজিরা দেওয়ার কর্মকাণ্ড বন্ধ রয়েছে। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন বিচারপ্রাথীরা।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে কর্মবিরতি রেখে বার কাউন্সিলের হল রুমে অবস্থান করছেন আইনজীবীরা।

তাড়াশ উপজেলা থেকে আসা বিচার প্রার্থী আমিনুল ইসলাম বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে একটি সমনজারী হয়েছে। দুই দিন হলো কোর্টে ঘোরাঘুরি করছি, কোন সমাধান পাচ্ছিনা।

কাজীপুর উপজেলা থেকে আসা আসাদুল্লাহ বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে আমার ছেলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। প্রতিদিন কোর্টে ঘুরে বিকালে বাড়ি যাই। কোন সমাধান পাচ্ছিনা। কোর্ট বন্ধ থাকার কারণে চরম বিপাকে পড়েছি।

জেলা আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আব্দুর রউফ পান্না বলেন, আজ (মঙ্গলবার) দুপুরে জরুরী মিটিং ডাকা হয়েছে। জরুরী মিটিং থেকে আমরা আরও কঠিন অবস্থানে যাবো। সুষ্ঠু বিচার না পেলে আইনজীবীদের কোর্ট বর্জন অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, রোববার রাতে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্টেনোগ্রাফার ইউসুফ আলী বাদী হয়ে ১১ জন আইনজীবীর নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত পরিচয়ে আরো ১৫/২০ জনকে আসামি দায়ের করেছেন সদর থানায়। এজন্য আমরা জরুরী মিটিং ডেকে আরও কঠিন সিদ্ধান্তে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এবিষয়ে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্টেনোগ্রাফার ইউসুফ আলীকে বার বার (০১৭১২৬৫২০৭৭) ফোন দিলে সে রিসিভ করেনি।

প্রসঙ্গত, ১৩ জানুয়ারি জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্টেনোগ্রাফার ইউসুফ আলীর সঙ্গে অ্যাডভোকেট আবুল কালামের কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে মারপিটের ঘটনা ঘটে। পরদিন রোববার সকালে কোট ও বিভিন্ন অফিস কক্ষসহ সকল এজলাসে তালা দেয় ইউসুফ আলীর লোকজন। এরই প্রতিবাদে জেলা আইনজীবী সমিতির সকল সদস্য কোর্ট চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও সংবাদ সম্মেলন করে আদালত বর্জন করে।