অধিকার ও সত্যের পক্ষে

পদত্যাগ করতে রাজি আছেন ভিকারুননিসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি

 নিজস্ব প্রতিবেদক ||

বাবা-মাসহ শিক্ষকদের আছে অপমানিত হয়ে নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার পর উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রয়োজনে পদত্যাগ করতে রাজি আছেন রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের নিজের এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন তিনি।

আশরাফ তালুকদার বলেন, উদ্ভূত পরিস্থিতি অনাকাঙ্ক্ষিত ও অপ্রত্যাশিত। শিক্ষার্থীদের দেয়া ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নে আমরা সকল পদক্ষেপ নিয়েছি। ইতোমধ্যে ৩ জন শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আশরাফ তালুকদারের অভিযোগ তারা প্রতিষ্ঠানটির পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করলেও বিভিন্ন মহলের উসকানিতে কিছু শিক্ষার্থী এখনও আন্দোলন ও বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, এটা আমরা প্রত্যাশা করি না। এ কারণে প্রতিষ্ঠানের বৃহত্তর স্বার্থে যদি আমাকে পদত্যাগ করতে হয় বা সরে যেতে হয় তাতে আমি রাজি আছি।

ভিকারুননিসার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বুধবার যে ছয় দফা দাবির কথা জানিয়েছিল তার একটি ছিল- গভর্নিং বডির সকল সদস্যকে অপসারণ করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের এ দাবির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পদাধিকার বলে প্রিন্সিপাল হচ্ছে কমিটির সদস্য সচিব। তাকে ছাড়া কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া সম্ভব না। এ কারণে আমরা দ্রুত অধ্যক্ষ নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করেছি। নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগ করার পর আমি কমিটির পদত্যাগের বিষয়টি বৈঠকে প্রস্তাব করব। সেখানে যদি কেউ দাবি মেনে নিতে চান সে বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নেবেন। কমিটির কাউকে পদত্যাগ করানোর বিষয়টি আমার ওপর নির্ভর করে না। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে আমি পদত্যাগ করতে রাজি আছি।

তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানটির সুনাম বজায় রাখতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সহযোগিতা প্রয়োজন।

তিনি আশা করেন, শিক্ষার্থীরা দ্রুত ক্লাসে ফিরে আসবেন।

এদিকে আজ বৃহস্পতিবার আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি আগের দিনের চেয়ে কম হওয়ায় আন্দোলনে নামা নিয়ে শঙ্কায় রয়েছে তারা। তবে আর আন্দোলনে নামার পক্ষে নন অনেক অভিভাবক। এই অভিভাবকরা বলছেন, আমাদের দাবি পূরণ হয়েছে। নতুন করে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সুনাম নষ্ট করতে চাই না। আমরা সবাই মিলে প্রতিষ্ঠানটি গুছিয়ে নিতে চাই।

একই ধরনের আরও সংবাদ