অধিকার ও সত্যের পক্ষে

মেডিকেলে টিকেও অর্থাভাবে ভর্তি হতে পারছেন না সামসুল

 নিজস্ব প্রতিবেদক॥

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের মেধাবী ছাত্র মেডিকেল কলেজে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও অর্থাভাবে ভর্তি হতে পারছেন না।

উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের লালনগর গ্রামের দরিদ্র কৃষক আতিয়ার রহমানের ছেলে মো. সামছুল ইসলাম এ বছর মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বরিশাল মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন। তার মেধা তালিকা নম্বর ১৭৫১।

কিন্তু, দারিদ্রের কষাঘাতে সামছুল ভর্তি হতে পারবেন কিনা তা নিয়ে চরম দুঃচিন্তায় ভুগছেন। দরিদ্র কৃষক আতিয়ার রহমানের তিন ছেলে মেয়ের মধ্যে সামছুল দ্বিতীয়। তার বড় বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। তার ছোট বোন এবছর প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা দেবে। সামান্য পরিমাণ জমি চাষাবাদের উপরই কোন রকমে তাদের সংসার চলে। তারপর এ পর্যন্ত লেখাপড়ার খরচ যোগাতে তার বাবাকে হিমশিম খেতে হয়েছে।

সামসুল ইসলাম জানান, তার স্বপ্ন ছিল ডাক্তার হয়ে সাধারণ মানুষকে চিকিৎসা সেবা দেয়াসহ তার পরিবারের দৈন্যতা দূর করবে। আগামী ২৫ অক্টোবরের মধ্যে ভর্তি হতে না পারলে তার ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে।

অদম্য মেধাবী সামসুল ইসলাম ২০১৬ সালে চিথলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৫ এবং ২০১৮ সালে সাগরখালী আদর্শ কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছেন। সামসুল ইসলাম ও তার পরিবার সামসুলের স্বপ্ন পূরণের জন্য বিত্তবানদের নিকট সহায়তা কামনা করেছেন।

একই ধরনের আরও সংবাদ