অধিকার ও সত্যের পক্ষে

দুনীতির শাস্তি: বেতন কমলো শিক্ষা কর্মকর্তার

 অনলাইন ডেস্ক ||

দুনীতির শাস্তি হিসেবে বেতন কমলো এক শিক্ষা কর্মকর্তার। ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের বীরগঞ্জের উপজেলায়। প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার চলতি দায়িত্বে থাকা মো: এরশাদুল হকের বিরুদ্ধে ঘুষ ও দুর্নীতি অভিযোগ উঠেছিল। যার শাস্তি হিসেবে তার বেতন ‘স্কেলের সর্বনিম্ন ধাপে’ নামিয়ে দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বৃহস্পতিবার এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়।

ওই আদেশে বলা হয়, ২০১৭ খ্রিস্টাব্দের ১০ সেপ্টেম্বর বিরুদ্ধে ঘুষ-দুর্নীতি ও অসদাচরণের অভিযোগে বিভাগীয় মামলা করা হয়। তিনি বিভাগীয় মামলার জবাব পাঠিয়েছিলেন। ২০১৭ সালের ২৫ অক্টোবর তার শুনানী গ্রহণ করা হয়। কিন্তু শুনানীর জবাব সন্তোষজনক বলে বিবেচনা করেনি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই মামলা তদন্তে কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়।

তদন্তে এরশাদুল হকের বিরুদ্ধে আসা অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় তাকে আইন অনুযায়ী নিম্নপদে অবনমিতকরণ করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মো: এরশাদুল হক সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার পদে উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তার চলতি দায়িত্বে থাকায় এবং সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার ফিডার পদ না থাকায় তাকে নিম্ন পদে অবনমিত করার সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাই প্রজ্ঞাপন সংশোধন করে আবার জারি করে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ১৯৮৫ এর বিধি ৪(৩)এ মোতাবেক নিম্ন বেতন স্কেলে অবনমিতকরণের ‘গুরুদণ্ড’ আরোপ করে মন্ত্রণালয়।

একই ধরনের আরও সংবাদ