অধিকার ও সত্যের পক্ষে

মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা ৫ অক্টোবর, ডেন্টালে ৯ নভেম্বর

 শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ

আগামী শিক্ষাবর্ষে মেডিকেল কলেজগুলোতে এমবিবিএসের ভর্তি পরীক্ষা হবে ৫ অক্টোবর। ডেন্টাল কলেজগুলোতে বিডিএসে ভর্তি পরীক্ষা হবে ৯ নভেম্বর।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষা-সংক্রান্ত সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এতে সভাপতিত্ব করেন।

শিগগিরই এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি পত্রিকায় প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সভায়।

বর্তমানে দেশে সরকারি ৩১টি ও বেসরকারি ৬৯টিসহ মোট ১০০টি মেডিকেল কলেজ রয়েছে। এগুলোতে মোট আসন সংখ্যা নয় হাজার ৫৬৮টি। এর মধ্যে সরকারিতে তিন হাজার ৩১৮ এবং বেসরকারিতে ছয় হাজার ২৫০টি আসন রয়েছে।

অন্যদিকে সরকারি ৯টি ডেন্টাল কলেজ ও ইউনিটে ৫২৫ ও ২৫টি বেসরকারি ডেন্টাল কলেজ ও ইউনিটে এক হাজার ৩৮৫টিসহ মোট এক হাজার ৯১০টি আসন রয়েছে।

সভায় অতীতের মতো কঠোর নিরাপত্তা ও সর্বোচ্চ স্বচ্ছতার সঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্টদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার গত চার বছর যাবত মেডিকেল শিক্ষার মান ঊর্ধ্বমুখী রাখতে যে অবস্থান বজায় রেখেছে এর ব্যত্যয় আগামীতেও ঘটবে না। বিশেষ করে চিকিৎসা শিক্ষায় ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে পূর্বের ন্যায় কঠোর নজরদারি এবারও থাকবে।’

একটি স্বচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার মধ্য দিয়ে এবারও মেধাবীরা এমবিবিএস ও বিডিএসে ভর্তির সুযোগ পাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন মোহাম্মদ নাসিম।

সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব জি এম সালেহ উদ্দিন, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. ইসমাইল খান, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) পরিচালক অধ্যাপক ডা. সহিদুল্লা, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ সমিতির সভাপতি হাজী মকবুল আহমেদ, এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা ওভারসাইট কমিটির সদস্য বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) বিদায়ী সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, আমাদের অর্থনীতি সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, প্রথম আলোর যুগ্ম-সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুমসহ মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

একই ধরনের আরও সংবাদ