অধিকার ও সত্যের পথে

লালপুরে উচ্চ মাধ্যমিকে ফল বিপর্যয় দুই মাদ্রাসা শুন্য, ১৫ জন জিপিএ-৫

 লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি ঃ

 চলতি বছর নাটোরের লালপুরে উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি ও সমমান) পরীক্ষায় ফলাফল বিপর্যয় ঘটেছে। আশা ব্যাঞ্জক ফলাফল না হওয়ায় শিক্ষার্থী,শিক্ষক ও পরিবার সবাই আশাহত। উপজেলায় মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫ জন। তবে উপজেলার চারটি আলিম মাদ্রাসার মধ্যে দুটি মাদ্রাসার’ই ফলাফল হয়েছে শুন্য। অর্থাৎ দুটি মাদ্রাসা থেকে কেউ পাশ করতে পারেনি। মাদ্রাসা দুটি হলো রায়পুর জাফরিয়া আলিম মাদ্রাসা ও নেঙ্গপাড়া আলিম মাদ্রাসা।

উপজেলা সংশ্লিষ্ট দফতর হতে জানা যায়,এ বছর জেনারেল কলেজ ও বিএম কলেজ থেকে উপজেলায় উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নেয় এক হাজার সাত শত ৭০ জন। এর মধ্যে পাশ করেছে আট’শ ১১ জন এবং ফেল নয়’শ ৫৯ জন ফেল। উপজেলায় পাশের হার ৪৫ দশমিক ৮২ ভাগ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৫ জন। এর মধ্যে মঞ্জিলপুকুর কৃষি, কারিগরি ও বাণিজ্যিক মহাবিদ্যালয়ের ছয় জন, গোপালপুর ডিগ্রী মহাবিদ্যালয়ের তিন জন, মাজার শরীফ মহিলা টেকনিক্যাল কলেজের দুই জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। এছাড়াও উপজেলার একমাত্র সরকারী কলেজ আব্দুলপুর সরকারী কলেজ, লালপুর কে এন পাইলট গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ,ওয়ালিয়া হাকিমুন্নেছা ও গোপালপুর পৌর টেকনিক্যাল কলেজের একটি করে জিপিএ-৫ পেয়েছে। এদিকে উপজেলার চারটি আলিম মাদ্রাসার মধ্যে দুটি মাদ্রাসার’ই ফলাফল হয়েছে শুন্য। অর্থাৎ দুটি মাদ্রাসা থেকে কেউ পাশ করতে পারেনি।

মাদ্রাসা দুটি হল রায়পুর জাফরিয়া আলিম মাদ্রাসা ও নেঙ্গপাড়া আলিম মাদ্রাসা। বালিতিতা ইসলামপুর ফাজিল মাদ্রাসার সুপার ও মাদ্রাসা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব শাহাবাজ আলী জানান, উপজেলার মোট চারটি আলিম মাদ্রাসা থেকে এবারের আলিম পরীক্ষায় মোট ৬৬ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়,এদের মধ্যে পাশ করেছে মাত্র নয় জন। এর মধ্যে বালিতিতা ইসলামপুর ফাজিল মাদ্রাসা থেকে পরীক্ষায় অংশ নেয় ৪১ জন পরীক্ষার্থী যার মধ্যে পাশ করে মাত্র সাত জন। ভেল্লাবাড়িয়া মাদ্রাসা থেকে ১২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয় যার মধ্যে পাশ করে দুই জন। আর রায়পুর জাফরিয়া আলিম মাদ্রাসা ও নেঙ্গপাড়া আলিম মাদ্রাসা থেকে যথাক্রমে ১১ জন ও দুই জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিলেও এ দুটি প্রতিষ্ঠান থেকে কেউ পাশ করেনি।

একই ধরনের আরও সংবাদ