অধিকার ও সত্যের পথে

সৈয়দপুরের সুজাতকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

 শামছুল হকঃ

সুজাত আহমেদ, বয়স ৯ বছর। বয়স অনুযায়ী তাঁর এখন খেলাধুলা করার কথা কিন্তু সে “এন্ড্রিনোলু কোডিসট্রফি” রোগে আক্রন্ত হয়ে বেঁচে থাকার জন্য লড়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।মুখে হাসি লেগেই থাকতো সবসময়, হাস্যোজ্জ্বল এই বাচ্ছার মুখে আজ হাসি নেই, বিছানায় পড়ে আছে বাঁচার এক বুক স্বপ্ন নিয়ে।

নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের বাঁশবাড়িতে বসবাসরত আজিজ আহমেদ ও রুমি বেগমের ছেলে সুজিত সৈয়দপুর সেন্ট জেরোজা স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণীর মেধাবি ছাত্র। ছোট্ট সুজাতের স্কুল থেকে ওর বাবাকে জানানো হয় সুজাতের চোখে মনেহয় সমস্যা। সুজাতের বাবা রংপুরের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ নিমাই কর্মকারের কাছে সুজাতকে নিয়ে যায়। নানা পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর সুজাতের বাবাকে জানায় সুজাতের চোখে কোন প্রকার সমস্যা নেই। সুজাতকে খুব দ্রুত কোন নিউরোসার্জানের কাছে নিয়ে যেতে বলেন। সুজাতের বাবা রংপুর মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ সুকুমার মজুমদার এর কাছে সুজাতকে নিয়ে যায়। ডাঃ সাহেব সুজাত কে ইন্ডিয়ায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। আর সুজাতের রোগ সম্পর্কে জানান রোগ টি ALD ( Adrenoleukodystrophy ) নামে পরিচিত। মুলত ব্রেইন থেকে যে স্নায়ু গুলো কাজ করে সুজাতের সেই স্নায়ু গুলো কাজ করছেনা। যেমন সুজাতের চোখ ভালো আছে কিন্তু ব্রেইন থেকে যে সংকেতের মাধ্যমে চোখ কাজ করবে সেই স্নায়ু কাজ করছেনা। সুজাত কে ইন্ডিয়ার National Institute Of Mental Health and Neuro Science এ নিয়া যাওয়া হয়। সেখানে ডাঃ তারাননাথ শেঠঠি দেখানো হলে তিনিই সুজাতের রোগ সম্পর্কে জানান বর্তমানে শুধু দৃষ্টি শক্তির সমস্যা আছে। তিনি আরও জানান পরবর্তীতে সুজাত শ্রবন শক্তি, বাক শক্তি, চলাফেরার শক্তি হারিয়ে ফেলবে। তাঁর চিকিৎসার জন্য বলেন Cell Therapy & Bone marrow Transplant  এর কথা। যা খুব দ্রুত করা প্রয়োজন এবং চিকিৎসার জন্য ব্যয় প্রায় ৩৫ লক্ষ টাকা, মধ্যবিত্ত সুজাতের বাবার পক্ষে এত খরচ বহন করা সম্ভব নয়।এ অবস্থায় সুজাতের চিকিৎসার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন তাঁর পরিবার।

সুজাতের বাবা ছেলের চিকিৎসা করানোর জন্য বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ দেশ-বিদেশে থাকা প্রবাসী ও বিত্তবানদের আর্থিক সহযোগীতা কামনা করেছেন।

সুজাত একজন মেধাবি ছাত্র, আপনার কিছু আর্থিক সাহায্যে ফিরে পাবে একটি মায়ের সন্তানের প্রাণ।

সাহায্য করার মাধ্যমঃ সুজাতের বাবার ব্যাংক হিসাব, বিকাশ, রকেট নাম্বারঃ

Aziz Ahmed, A/C No:161.151.161553. Dutch-Bangla Bank Ltd. Saidpur Branch-Nilphamari.

বিকাশ নাম্বার 01796-888548, রকেট নাম্বার 01796-8885480.

একই ধরনের আরও সংবাদ