অধিকার ও সত্যের পথে

আজ বৃহস্পতিবার প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ও বিক্ষোভ কর্মসূচি

 নিজস্ব প্রতিনিধি।।

এমপিওভুক্তির সুস্পষ্ট ঘোষণা না আসা পর্যন্ত এ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে নন এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশন।
শিক্ষকরা জানান,মঙ্গলবার পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এমপিওর দাবিতে বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে তারা। কিছুক্ষণ পর পুলিশ এসে শিক্ষকদের এখান থেকে সরে যেতে বলে। এতে শিক্ষকরা রাজি না হলেও সেখানে থেকে তিনজন নারী শিক্ষকসহ পাঁচজনকে আটক করে নিয়ে যায় শাহবাগ থানা পুলিশ। এ সময় পুলিশের লাঠিচার্জে তিনজন শিক্ষক আহত হন বলে দাবি করেন শিক্ষকরা। তবে, আটকের কিছু সময় পরই দুজন শিক্ষককে ছেড়ে দেয়া হলেও তিন নারী শিক্ষককে ছাড়া হয় বেলা দুইটার পর। শিক্ষকদের আটকের সময় প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে শিক্ষকদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। পরে বেলা দুইটার পর দিনের কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করেন ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ মাহদুন্নবী ডলার।

তিনি বলেন, আমরা নেতৃবৃন্দ এখানে ইফতার করেছি। বৃহস্পতিবার একই সময়ে প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হবে।
এমপিওর দাবিতে গতকাল চতুর্থ দিনে সকাল ১০টা থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে ননএমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ শিক্ষকদের প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে লাটিচার্জ করে সরিয়ে দেয়। এর আগে তিন দিন পুলিশের বাধায় প্রেস ক্লাবের সামনে দাঁড়াতে না পেরে ক্লাবের উল্টো দিকের রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করেন তারা। ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায় বলেন, শিক্ষামন্ত্রী গত ১০ বছর ধরে বলে আসছেন বাজেটে বরাদ্দ থাকলে এমপিওভুক্ত করা হবে। অথচ উনি নতুন করে আবার মিথ্যাচার করছেন যে বাজেটে বরাদ্দ জরুরি বিষয় নয়। এমপিওভুক্তির সুনির্দিষ্ট বক্তব্য বা গেজেট প্রকাশের দাবি জানান বিনয় ভূষণ রায়।

একই ধরনের আরও সংবাদ