অধিকার ও সত্যের পথে

বশেমুরবিপ্রবি’র উন্নয়নে মাননীয় ভিসি’র অবদান

 ফয়সাল হাবিব সানি, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পুণ্যভূমি গোপালগঞ্জে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অচিরেই দেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কাতারে অাত্নপ্রকাশ করেছে।

যার পেছনে নিরলসভাবে শ্রম দিয়ে গেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপাচার্য প্রফেসর ডঃ খোন্দকার নাসিরউদ্দিন। ২০১১ সালে একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) অবস্থান এখন চতুর্থ পর্যায়ে। অাসন সংখ্যার দিক দিয়ে এ বছর যা পেছনে ফেলেছে জাহাঙ্গীরনগর, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়কেও। বর্তমানে অাসন সংখ্যায় দেশের চতুর্থ বৃহত্তম বিশ্ববিদ্যালয় এখন ৫৫ একরের বশেমুরবিপ্রবি। বশেমুরবিপ্রবিতে সংরক্ষিত রাখা হয়েছে ৩,০০১টি অাসন যা অাসন সংখ্যা গণনায় পেছনে ফেলেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকেও। ৭,১২৩টি অাসন নিয়ে এ বছর প্রথম অবস্থানে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ৪,৭৯১টি অাসন নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, ৪,১১৯টি অাসন নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং সদ্য ২০১১ সালে একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) অাসন সংখ্যার দিক দিয়ে উঠে এসেছে দেশের চতুর্থ বৃহত্তম বিশ্ববিদ্যালয়ের কাতারে। এক্ষত্রে, অাসন সংখ্যায় ৫৫ একরের এ বিশ্ববিদ্যালয়কে চতুর্থ স্থানে নিয়ে যাবার ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যলয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডঃ খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের অবদান সত্যিই ঈর্ষণীয়।
এছাড়াও, একসময়ের মরুভূমি সদৃশ বশেমুরবিপ্রবি দেশের সর্ববৃহৎ উদ্ভিদ সংগ্রহশালা হিসেবেও পরিচিতি পেয়েছে। নানা প্রজাতির উদ্ভিদে সমৃদ্ধ বশেমুরবিপ্রবি হয়ে উঠেছে দর্শনার্থীদের জন্যও বিশেষ অাকর্ষণীয় স্থান। নানা প্রজাতির গাছ-গাছালি ও উদ্ভিদের প্রাচুর্যে এখন এক নয়নাভিরাম নান্দনিক মনোরম ক্যাম্পাসের নাম বশেমুরবিপ্রবি।
শুধু তাই নয়, অাধুনিক ল্যাব স্থাপন, বিশেষ ইন্টারনেট ব্যবস্থা, শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষা অর্জনের নিমিত্তে বিদেশে গবেষণার সুযোগ, যাতায়াত ও অাবাসন ব্যবস্থার ক্রমোন্নতি, সুস্থ বিনোদন, খেলাধুলা ও শিল্প-সাহিত্য চর্চা, বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে বঙ্গবন্ধুর নামে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রতিষ্ঠা, বঙ্গবন্ধু স্টাডিজ বাধ্যতামূলক, অাইটি পার্ক স্থাপন, সমগ্র বিশ্ববিদ্যালয় সিসি ক্যামেরার অাওতাভুক্ত প্রভৃতি শিক্ষা ও প্রযুক্তি খাতের উন্মেষ ঘটিয়ে মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ডঃ খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বশেমুরবিপ্রবিকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়।
অাধুনিক বশেমুরবিপ্রবি’র কারিগর ও রূপকার প্রফেসর ডঃ খোন্দকার নাসিরউদ্দিন অদূর ভবিষ্যতেও বশেমুরবিপ্রবিকে অারও স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় হিসবে পরিচিতি লাভ করানোর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে নিরলস শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। তার স্বপ্ন এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা একদিন দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বিদেশের মাটিতেও দেশের হয়ে সুনাম বয়ে অানবে। বশেমুরবিপ্রবিকে উন্নয়ের জোয়ারের তাই সফল অংশীদার উপাচার্য প্রফেসর ডঃ খোন্দকার নাসিরউদ্দিন।
একই ধরনের আরও সংবাদ