অধিকার ও সত্যের পথে

ছাত্র-ছাত্রীদের সম্মতি ছাড়া ভর্তি ফরম পূরণ করেছে নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজ

 চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ

ছাত্র-ছাত্রীদের সম্মতি ছাড়া একাদশ শ্রেনিতে অনলাইন ভর্তি ফরম পূরন করেছে নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের কতৃপক্ষ এলাকায় চরম উত্তেজনা ।


ভোলা জেলার সদ্য দুলারহাট থানার অধীনে সদ্য প্রতিষ্ঠিত নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের কতৃপক্ষ ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষ সদ্য এস,এস,সি পাশকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের সম্মতি ছাড়া জোরপূর্বক অনলাইন ভর্তি ফরম পূরন করেছে। ভোলা জেলার সদ্য দুলারহাট থানার অধীনে দুলারহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আহাম্মদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মুন্সীরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও নজির মাঝির হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় হতে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষ সদ্য এস, এস,সি পাশকৃত ছাত্র ছাত্রীেেদর সম্মতি ছাড়া জোরপূর্বক একাদশ শ্রেনিতে অনলাইন ভর্তি ফরম করেছে সদ্য প্রতিষ্ঠিত নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের কতৃপক্ষ । গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত সকল কলেজ/মাদ্রাসা/কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য ইন্টারনেট অথবা মোবাইল SMS এর মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। ১৩ মে হতে ২৪ মে, ২০১৮ তারিখের মধ্যে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য ইন্টারনেট অথবা মোবাইল SMS অথবা উভয় পদ্ধতিতে আবেদন করা যাবে বলে বিজ্ঞপ্তি দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয় কিন্তুু ছাত্র-ছাত্রীদের পছন্দ উপেক্ষা করে জোর পূর্বক ছাত্র-ছাত্রীদের অনলাইন ভর্তি ফরম পূরন করেছে সদ্য প্রতিষ্ঠিত নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের কতৃপক্ষ। জোর পূর্বক ছাত্র-ছাত্রীদের অনলাইন ভর্তি ফরম পূরন করায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সিহাব নামে একজন তার ফেইজবুকে লিখিছে আমার ভর্তি আমি জানিনা। ইন্টারনেটে সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ/মাদ্রাসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবেদনের জন্য ১৫০/- (একশত পঞ্চাশ টাকা) আবেদন ফি প্রযোজ্য হবে। SMS এর মাধ্যমে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রতি আবেদনের জন্য ১২০/- (একশত বিশ টাকা) আবেদন ফি প্রযোজ্য হবে। ইন্টানেটের মাধ্যমে আবেদনের জন্য টেলিটক/ রকেট/শিওরক্যাশ-এর মাধ্যমে ১৫০/- টাকা প্রদান করতে হবে। SMS এ আবেদনের জন্য শুধুমাত্র টেলিটক মোবাইলের মাধ্যমে ১২০/- টাকা প্রদান করতে হবে। কিন্তু সদ্য প্রতিষ্ঠিত নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের কতৃপক্ষ মাত্র তাদের কলেজেটি আবেদন করে উক্ত আবেদনটি গ্রহন করে নিয়েছে যার কারনে ছাত্র-ছাত্রীরা অন্য কলেজে আবেদন করতে পারছেনা। স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় ছাত্র-ছাত্রীদের আগামী ভবিষ্যৎ নষ্ট করতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

একই ধরনের আরও সংবাদ