অধিকার ও সত্যের পথে

জিমেইল নিয়ে এল নতুন সুবিধা

 শিক্ষাবার্তা ডেস্কঃ

প্রায় পাঁচ বছর পর পরিবর্তন আনা হয়েছে গুগলের ই-মেইল সেবা জিমেইলে। নতুন এ সংস্করণে শুধু নকশাই নয়, বেশ কিছু নতুন সুবিধাও যোগ করা হয়েছে। তবে জিমেইলের এত দিনের চেনা রূপ নিজে নিজে বদলে যাবে না। নতুন এ সংস্করণটি ব্যবহার করতে ব্যবহারকারীদের বার্তা পাঠিয়ে আহ্বান জানানো হয়েছে। আর যাঁরা সেটি এখনো পাননি, তাঁরা জিমেইলের সেটিংস আইকন চেপে ‘Try the new Gmail’ অপশন নির্বাচন করলেই নতুন সংস্করণটি ব্যবহার করতে পারবেন।

নতুন সংস্করণে জিমেইলের নতুন সুবিধাগুলো এক নজরে দেখে নেওয়া যাক।

ই-মেইলের গোপনীয়তা

নতুন জিমেইলে যুক্ত করা হয়েছে ই-মেইলের গোপনীয়তা রক্ষার সুবিধা। ‘কনফিডেনশিয়াল মোড’ নামের নতুন এ সুবিধায় পাঠানো ই-মেইল নির্দিষ্ট সময় পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে। অর্থাৎ প্রেরক কোনো ই-মেইলের সঙ্গে এক দিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে যে সময় নির্দিষ্ট করে দেবেন, ঠিক সে সময় পরেই ই-মেইলটিতে আর পড়া যাবে না। এ ছাড়া একই সুবিধা ব্যবহার করে ই-মেইলটি কপি করা, অন্যকে ফরোয়ার্ড করা কিংবা ডাউনলোড করাও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। তবে ই-মেইলের স্ক্রিনশট নেওয়া রোধ করা যাবে না নতুন এ সুবিধায়। সুবিধাটি এখনো সব দেশে উন্মুক্ত করা হয়নি।

ফিরিয়ে নেওয়া যাবে পাঠানো ই-মেইল

‘আনসেন্ড’ নামের নতুন সুবিধাটি শুধু কনফিডেনশিয়াল মোড ব্যবহার করা ই-মেইলের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। সে ক্ষেত্রে এমন ই-মেইলে প্রেরক যেকোনো মুহূর্তেই তা ফিরিয়ে আনতে পারবে। তবে প্রাপকের ইনবক্সে বিষয়সহ ই-মেইলটি দেখাবে ঠিকই, তবে ই-মেইলে প্রবেশ করলে প্রেরক যে ই-মেইলটি ফিরিয়ে নিয়েছেন তা লেখা থাকবে।

ই-মেইলে না ঢুকেই ফাইল দেখা

জিমেইলের নতুন সংস্করণের ডিফল্ট নকশাটিতে ই-মেইলের মধ্যে থাকা কোনো ফাইল দেখতে সেটি খোলার কোনো প্রয়োজন নেই। ইনবক্সেই সে ই-মেইলের বিষয়ের নিচে ই-মেইলে থাকা ফাইলটি দেখাবে। সেখান থেকেই ফাইলটি দেখা যাবে। এ সুবিধাটি নতুন সংস্করণ চালু করার সময়ই দেখাবে।

ইনবক্স বড় করা

এ সুবিধাটি কিছু ব্যবহারকারীর জন্য অনেকটা সহায়ক হতে পারে। ইনবক্সের আকার কিছুটা বাড়ানো যাবে নতুন সংস্করণে। সেটি করতে হলে জিমেইলের লোগোর পাশেই তিনটি দাগের বোতাম রয়েছে। সেটি চাপলেই জিমেইলের বাঁ পাশের বারটি সরে গিয়ে ছোট হয়ে যাবে।

ই-মেইলের স্বয়ংক্রিয় উত্তর

জিমেইলের নতুন সংস্করণে ই-মেইলের উত্তর দিতে খুব বেশি ভাবতে হবে না। কারণ, জিমেইলে উত্তর দিতে গুগলের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করা হয়েছে। সঙ্গে মেশিন লার্নিং প্রযুক্তিও থাকছে। এতে জিমেইলে আসা কোনো ই-মেইলের প্রাসঙ্গিক উত্তর কী হতে পারে তা ই-মেইলের বিষয় অনুযায়ী ঠিক করে রাখবে জিমেইল। যেমন: কেউ কোনো সংবাদ ও তার ওয়েবলিংক পাঠিয়ে ই-মেইল করলে সেখানে ‘ঠিক আছে আমি পড়ে দেখব’ এমন উত্তর আগ থেকেই তৈরি করা থাকবে। তবে তা পাঠাতে হবে ব্যবহারকারীকেই।

কাজের পরিকল্পনা করা যাবে জিমেইলেই

একের পর এক ভিন্ন ভিন্ন কাজ যাঁরা করে থাকেন, জিমেইলের নতুন এ সুবিধাটি তাঁদের বেশ কাজে দেবে। জিমেইলের নতুন সংস্করণে ইনবক্সের ডান পাশে নতুন একটি সাইডবার যোগ করা হয়েছে। যেখানে গুগলের নোট সেবা ‘কিপ’, টাস্ক, ক্যালেন্ডারের মতো প্রয়োজনীয় সব অ্যাড-অনস দেওয়া রয়েছে। চাইলে নিজের সুবিধামতো আরও অ্যাড-অনস যোগ করা যাবে।

সূত্র: সিএনএন

একই ধরনের আরও সংবাদ