অধিকার ও সত্যের পক্ষে

কটিয়াদীতে সাংবাদিকের স্ত্রী স্কুল শিক্ষিকার সন্তানের চিকিৎসা না করার হুমকি

 মাসুম পাঠান কটিয়াদী(কিশোরগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার মো.শামীম মিয়া সাংবাদিক স্বজনদের চিকিৎসা না করার হুমকি দিয়েছেন। তিনি উত্তেজিত হয়ে বলেন, পারলে আমার বিরুদ্ধে আরও রিপোর্ট করেন।

জানা যায়, রবিবার সন্ধ্যায় সাংবাদিক মোবারক হোসেনের স্ত্রী স্কুল শিক্ষিকা জিন্নাত সুলতানা তার অসুস্থ শিশু সন্তান মাহাদি হোসেনকে(৫) চিকিৎসার জন্য জরুরী বিভাগে নিয়ে যান। এ সময় জরুরী বিভাগে অন্যান্য রোগীদের তিনি যথা নিয়মেই চিকিৎসা দিচ্ছেন। কয়েক জনের পরে মাহাদির সিরিয়াল আসে। নাম, পিতার নাম জিজ্ঞাসা করেন। পিতার নাম শুনেই তিনি চেচিয়ে উঠে বলেন আমি সাংবাদিকের কোন স্বজনদের চিকিৎসা করি না। বেরিয়ে যান। অগত্যা চিকিৎসা না পেয়ে স্কুল শিক্ষিকা তার সন্তানকে নিয়ে জরুরী বিভাগ থেকে বেরিয়ে আসেন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তার বাসায় ছেলের চিকিৎসা করান।

বিষয়টি স্কুল শিক্ষিকা তার স্বামীকে জানান। তিনি কর্মরত ডাক্তার শামীমকে কেন চিকিৎসা করবেন না জানতে চাইলে উত্তেজিত হয়ে বলেন, যান রিপোর্ট করেন গিয়ে। উল্লেখ্য গত ৪ নভেম্বর২০১৭ তারিখে ডাক্তার শামীম মিয়ার কর্তব্য কাজে অবহেলায় ১১ মাসের শিশু সায়মা আক্তারের মৃত্যুর সংবাদ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে প্রকাশের পর থেকে তিনি সাংবাদিকদের সম্পর্কে নানা রকম অপপ্রচার করে আসছেন।

এ ব্যাপারে ডা. শামীম মিয়ার সাথে মুঠোফোনে কথা বলতে চাইলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি। বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প:কর্মকর্তা ডা. তপন কুমার দত্তকে জানালে তিনি বলেন, একজন ডাক্তার এ ধরণের আচরণ করতে পারেন না। আমি বিষয়টি খতিয়ে দেখবো।

 

একই ধরনের আরও সংবাদ