অধিকার ও সত্যের পথে

গায়ে আগুন দিয়ে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

মো: মোজাহিদুর রহমান, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি ।। গত ০৫ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৯টায় বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার খড়মখালী গ্রামে বাবার নির্যাতন সইতে না পেরে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে স্কুল পড়ুয়া এক কিশোরী। প্রতিবেশীরা জানান, বাগেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার খড়মখালী গ্রামের বাবুল বিশ্বাস তার স্ত্রী রেণুকা বিশ্বাসের উপর প্রায়ই কারণে অকারণে নির্যাতন চালায়।  ছেলে-মেয়েরা ঠেকাতে গেলে তিনি তাদেরও মারধর করেন। অনুরূপ বৃহস্পতিবার সকালে বাবুল তার স্ত্রীকে বাইসাইকেলর চেন দিয়ে মারপিট শুরু করেন।

এ সময় তাদের মেয়ে চিতলমারী এসএম মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী সুবর্ণা বিশ্বাস ঠেকাতে যায়। ঠেকাতে গেলে তার বাবা তাকেও থাপ্পড় মারেন। একদিকে বাবার থাপ্পড় অন্যদিকে মায়ের উপর নির্যাতন সইতে না পেরে কিশোরী সুবর্ণা ঘরে থাকা কেরোসিন তেল গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন দাউ দাউ করে জ্বলে ওঠে। এ সময় আগুন নেভাতে এসে তার মা রেণুকা বিশ্বাস (৪০) ও ভাই কৃষ্ণকান্ত বিশ্বাস (২২) আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে চিতলমারী সদরের একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে চিতলমারী ক্লিনিকের পরিচালক ডাক্তার শেখ ফারুক আহম্মেদ জানান, কিশোরী সুবর্ণার শরীরের ৯০ ভাগ আগুনে পুড়ে ঝলসে গেছে। তার অবস্থা শঙ্কাটাপন্ন ।

একই ধরনের আরও সংবাদ